x

এইমাত্র

  •  মহামারি করোনাভাইরাসে বিশ্বব্যাপী মৃত্যু ৭ লাখ ২৪ হাজার, আক্রান্ত ১ কোটি ৯৫ লাখেরও বেশি

‘কৃত্রিম’ মার্কিন যুদ্ধজাহাজকে ধ্বংস করলো ইরান

প্রকাশ : ২৯ জুলাই ২০২০, ১৯:০৬

সাহস ডেস্ক

হরমুজ প্রণালীতে যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবাহী রণতরীর আদলে সাজানো একটি ‘কৃত্রিম’ যুদ্ধজাহাজকে লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার মহড়া চালিয়েছে ইরানের ‘এলিট বাহিনী’ রেভল্যুশনারি গার্ড (আইআরজিসি)।

মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) থেকে শুরু হওয়া নবী মোহাম্মদ (সা.)-১৪ নামে অনুষ্ঠিত এই মহড়াটিতে ব্যালিস্টিক ও ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করেছে দেশটি। ক্ষেপণাস্ত্রটি হেলিকপ্টার থেকে নিক্ষেপ করা হয় বলে জানিয়েছে ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন।

টেলিভিশনে প্রচারিত ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, আইআরজিসির বিমান ও নৌ সদস্যরা দেশটির দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় উপকূলে সম্ভাব্য প্রতিপক্ষের ওপর হামলার জন্য প্রস্তুত হচ্ছেন। নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে স্পিডবোট চলাচল করছে, তীর থেকে গোলা নিক্ষেপ করা হচ্ছে এবং হেলিকপ্টার থেকে একটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়েছে। এ মহড়ায় মূলত ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সৃষ্ট সাম্প্রতিক উত্তেজনাকেই ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

বিবিসি জানিয়েছে, এই মহড়ার সময় এতো বেশি গোলাগুলি হয় যে, ওই অঞ্চলের দুইটি সামরিক ঘাঁটিতে সাময়িক সতর্কাবস্থা জারি করে যুক্তরাষ্ট্র।

পারস্য উপসাগরে নিয়মিত চলাচলকারী মার্কিন বিমানবাহনী রণতরীর মতো করে বানানো ওই মডেলটির ডেকে কৃত্রিম যুদ্ধবিমানও রাখা ছিল।

মহড়ায় বিভিন্ন দিক থেকে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়। এর মধ্যে কয়েকটি ওই রণতরীর মডেলটি লক্ষ্য করে ছোড়া হয়। হেলিকপ্টার থেকে ছোড়া আরেকটি ক্ষেপণাস্ত্র কৃত্রিম ওই যুদ্ধজাহাজটির একপাশে আঘাত হানে।

ইরানের বিপ্লবী গার্ডের কমান্ডার মেজর জেনারেল হোসেইন সালামি রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলেছেন, ‘এ মহড়ার মধ্য দিয়ে বিমান ও নৌবাহিনীর আক্রমণ করার সক্ষমতা তুলে ধরা হয়েছে।’

এদিকে, ইরানের এ সামরিক মহড়াকে ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন এবং বেপরোয়া আচরণ’ মন্তব্য করে কঠোর সমালোচনা করেছে মার্কিন নৌবাহিনী। তারা এটিকে ইরানের জোর করে ভয় দেখানোর চেষ্টা বলে অভিযোগ করেছে।

সূত্র: বিবিসি ও আল জাজিরা

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত