প্রিমিয়ার লিগে রাজত্ব করবেন হলান্ড: ওয়েন রুনি

প্রকাশ : ০৮ আগস্ট ২০২২, ১৮:১৯

সাহস ডেস্ক

‘গোল মেশিন’ আখ্যাটা অনেক আগেই পেয়েছিলেন আর্লিং হলান্ড। যার প্রভাবটা দেখালেন মৌসুমের শুরুতেই। তার জোড়া গোলে ওয়েস্টহ্যামকে নতুন মৌসুমের লিগ শুরু করেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি। রবিবার (৭ আগস্ট) রাতে লন্ডন স্টেডিয়ামে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ওয়েস্টহ্যামকে ২-০ গোলে হারিয়েছে পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা। দুই অর্ধে দুটি গোলই করেছেন হলান্ড।

এদিনের ম্যাচে প্রায় একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করে খেলে সফরকারীরা। ৭৬ শতাংশ সময় বল দখলে ছিল সিটির। শটও নেয় ১৪টি, তবে লক্ষ্যে ছিল মাত্র দুটি। সে দুটিকেই গোলে পরিণত করে দলটি। অন্যদিকে ৬টি শট নিয়ে ১টি লক্ষ্যে রাখে ওয়েস্টহ্যাম। ম্যাচের ৩৬ মিনিটে সফল স্পটকিকে প্রথম গোলটি পান হলান্ড। ইকাই গুন্দোগানের বাড়ানো থ্রু বল এগিয়ে গিয়ে লুফে নিতে চেয়েছিলেন ওয়েস্টহ্যামের বদলি গোলরক্ষক আরিওলা। অন্যদিকে ক্ষিপ্র গতিতে ডি-বক্সে ঢুকে লক্ষ্যভেদ করতে চেয়েছিলেন হলান্ড। বল ঠেকাতে গিয়ে এ তরুণকে ফাউল করে বসেন আরিওলা। ফলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। ম্যাচের ৬৫ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে সিটি। প্রায় মাঝমাঠ থেকে কেভিন ডি ব্রুইনের বাড়ানো থ্রু পাস ধরে ডি-বক্সে ঢুকে বাঁ পায়ের শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন হলান্ড। এই ২-০ গোলের জয়ে ৩ পয়েন্ট নিয়ে নতুন মৌসুম শুরু করল সিটিজেনরা।

জার্মান লিগ ছেড়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে খেলবেন বলে অনেকেই বাঁকা চোখে দেখেছেন হলান্ডের সামর্থ্যকে। এরমধ্যে গত সপ্তাহে সিটির হয়ে কমিউনিটি শিল্ডের ম্যাচে লিভারপুলের বিপক্ষে দুটি সহজ গোল নষ্টও করেছিলেন তিনি। তখন অনেকেই তার সমালোচনার ঝড় বইয়ে দিয়েছিল। প্রিমিয়ার লিগে তার মানিয়ে নিতে কষ্ট হবে বলেই দাবি করেছিলেন অনেকে। তবে হলান্ড জানিয়ে দিলেন তিনি ভিন্ন ধাতুতেই গড়া। ওয়েস্টহ্যামের বিপক্ষে জোড়া গোল করে মালোচকদের মোক্ষম জবাবটা দিয়ে দিলেন নরওয়ের এ তরুণ তারকা। এমনটা যে হলান্ড করবেন, হয়তো আগে থেকেই জানতেন ওয়েন রুনি। প্রিমিয়ার লিগে রাজত্ব করবেন আর্লিং হলান্ড, ব্রিটিশ দৈনিক দ্য টাইমস-এ আগেই ঘোষণা দিয়েছিলেন রুনি।

টাইমসের কলামে সাবেক ইউনাইটেড স্ট্রাইকার লিখেছেন, ‘ম্যানচেস্টার সিটির নিন্দুকেরা কমিউনিটি শিল্ডে আর্লিং হলান্ডকে গোল করতে ব্যর্থ হতে দেখাটা উপভোগ করেছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তার মিসগুলো বারবার দেখানো হয়েছে এবং তার বাজে শুরু নিয়েও অনেক শিরোনাম করা হয়েছে। আমি ম্যাচটা একটু অন্যভাবে দেখেছি। আমি দেখেছি, বড় অঙ্ক দিয়ে কেনা সিটির এই খেলোয়াড় নিশ্চিত করেছে, কেন সে ইংল্যান্ডে অনেক গোল পেতে যাচ্ছে, এবং পাবে। আমার মতে, সে-ই শিরোপার লড়াইয়ে ব্যবধান গড়ে দেবে।’ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপার লড়াই গত কয়েক মৌসুম ধরেই মূলত সিটি আর লিভারপুলের মধ্যে। হলান্ডকে নিয়ে তাই বড় দুশ্চিন্তাটা লিভারপুলেরই হওয়া উচিত বলে মত রুনির, ‘মূলত ওর কারণেই আমি মনে করি, সিটি এবারও শিরোপা ধরে রাখবে। লিভারপুল অসাধারণ দল, নিজেদের দিনে যেকোনো দলকে হারাতে পারে। কিন্তু তুলনামূলকভাবে সিটির খেলোয়াড়রা ভালো, দলটাও ভালো।’

সালজবুর্গ আর ডর্টমুন্ডের হয়ে হলান্ড যেভাবে গোলের পর গোল করে গেছেন, সেটাতে সিটিতেও সম্ভব, এমনকি আরও বেশি করাও সম্ভব বলে মনে করেন রুনি, ‘ওর বয়স মাত্র ২২ বছর, এরই মধ্যে ২২২ ম্যাচে ১৭৫ গোল হয়ে গেছে (ওয়েস্ট হামের বিপক্ষে ম্যাচের আগ পর্যন্ত)। সিটি যত সুযোগ তৈরি করে প্রতি ম্যাচে, সেটা মাথায় রেখে বলতে পারি, হলান্ডের সামর্থ্য আছে ইংল্যান্ডে প্রতি ম্যাচেই গোল করার এবং এই মৌসুমের গোল্ডেন বুট জেতার।’ শুধু এই মৌসুম নয়, প্রিমিয়ার লিগে হলান্ডের ভবিষ্যৎ নিয়েও দারুণ আশাবাদী রুনি, ‘আমরা অনেক খেলোয়াড়কে দেখেছি, অনেক আশা জাগিয়ে প্রিমিয়ার লিগে আসতে এবং পরে ব্যর্থ হতে। কিন্তু আমার বিশ্বাস, হলান্ড সফল হবে। সে সিটিকে আরও ভালো দল বানাবে, লিভারপুলের চেয়ে আরেকটু এগিয়ে দেবে। যদি তার শুরুটা ভালো হয়, এক দিন সে প্রিমিয়ার লিগের মহাতারকা হবে।’ সেই ভালো শুরুটা তো হলান্ড গত রাতেই পেয়ে গেছেন। এখন তাহলে নতুন এক মহাতারকাকে দেখার অপেক্ষায় প্রিমিয়ার লিগ!

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?