স্প্যানিশ লা লিগা

হেরেই চলেছে বার্সেলোনা

প্রকাশ : ২৫ এপ্রিল ২০২২, ১৯:৩৮

সাহস ডেস্ক

ইউরোপা লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে আইনট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্টের বিপক্ষে হার দিয়ে শুরু বার্সেলোনার। এরপর লা লিগায় নিচের সারির দল কাজিদের বিপক্ষে হারে যায়, এবার লা লিগার ১১ নম্বর দল রায়ো ভায়েকানোর বিপক্ষেও হেরেছে বার্সেলোনা।

রবিবার (২৪ এপ্রিল) দিবাগত রাতে ঘরের মাঠ ক্যাম্প ন্যুয়ে স্প্যানিশ লা লিগার ম্যাচে রায়ো ভায়েকানোর বিপক্ষে ১-০ গোলে হেরেছে জাভি হার্নান্দেজের দল। শিরোপা লড়াইয়ের দৌড়ে এই হারে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ থেকে অনেক দূরত্ব বাড়িয়েছে বার্সেলোনা। আরও একটি শিরোপা জিততে রিয়ালের দরকার ৫ ম্যাচে মাত্র ১ পয়েন্ট।

৩৩ ম্যাচে ৭৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে আছে রিয়াল মাদ্রিদ। সমান ম্যাচে ৬৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয়তে আছে বার্সেলোনা। সমান ম্যাচে বার্সা সমান ৬৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তৃতীয়তে আছে সেভিয়া। সমান ম্যাচে ৬১ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চতুর্থ স্থানে আছে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ। আর বার্সা যার সাথে হেরেছে সে রায়ো ভায়েকানো সমান ম্যাচে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ১১তম স্থানে উঠে এসেছে। 

নিচের সারির দলের বিপক্ষে ঘরের মাঠে এরকম বিব্রতকর হার নিশ্চিতভাবে তাদের প্রত্যাশার অনেক বাইরে। চলতি লিগে অবশ্য ভায়োকানোর বিপক্ষে দুই দেখায় দুবারই হেরেছে কাতালান ক্লাবটি। গত অক্টোবর এই দলটির বিপক্ষে ১-০ গোলে হারের পর চাকরি হারান তখনকার কোচ রোনাল্ড কোম্যান।

তবে বার্সা কোচ জাভি অবশ্য আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন, এবারের লিগে তাদের লক্ষ্য দ্বিতীয় হওয়া। পরের মৌসুমে তারা খেলবেন শিরোপার জন্য।

এদিন ম্যাচের শুরুতেই গোল হজম করে বার্সা। ম্যাচের ৭ মিনিটে ভায়োকানোর ফরোয়ার্ড আলভারো গার্সিয়া দারুণ দক্ষতায় বক্সে ঢুকে নিখুঁত শটে জালে বল জড়ান। গোল হজম করে ম্যাচে ফেরার অনেক চেষ্টা চালায় বার্সা। কিন্তু কাঙ্খিত গোল আর আসেনি। প্রথামার্ধে ৮টি শট নিলেও কাজ হয়নি। কেবল একটি শট নিয়ে সেটিতেই গোল পাওয়ায় ভায়োকানো মন দেয় ডিফেন্সিভ ফুটবলে। এগিয়ে থাকা ভায়োকানোর একটাই লক্ষ্য ছিল গোল ধরে রাখা। জমাট রক্ষণে সেই কাজটি তারা করতে পেরেছে সফলভাবে।

বিরতির পর দুবার পেনাল্টির আবেদন করে ব্যর্থ হয় বার্সা। ম্যাচের ৬৯ মিনিটে বক্সের মধ্যে মেমফিস ডিপাইয়ের ভায়োকানোর ডিফেন্ডারের শরীর স্পর্শ করে হাতে লাগলে পেনাল্টির আবেদন করে বার্সেলোনা। রেফারি তাতে সাড়া দেননি। ৮৯ মিনিটে বক্সের মধ্যে ফাউলের আবেদন করেন গাভি। কিন্তু তাতেও সাড়া মেলেনি। হতাশ হয়ে মাঠ ছাড়েড়তে হয় ক্রমশই বিবর্ণ হতে থাকা এক সময়ের দাপুটে দলটি। পরে আর কোনো গোল না হলে এই ১-০ গোলে হেরে মাঠ ছাড়ে জাভি বাহিনী।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?