ভারতকে ১০ উইকেটে হারিয়ে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের ইতিহাস

প্রকাশ : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০১:৩১

সাহস ডেস্ক
বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ান। ছবি: এএফপি

বিশ্বকাপের কোনো ম্যাচে ভারতকে হারাতে পারেনি পাকিস্তান। সে ৫০ ওভারের হোক আর ২০ ওভারেরই। এর আগে বিশ্বকাপের ১২ বার মুখোমুখি হয়েছে উপমহাদেশের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী এই দুই দল। অনেক কিংবদন্তি অধিনায়ক নিয়েও ভারতের কাছে হারের গ্লানি নিয়ে ফিরতে হয়েছে চাঁদ-তারার প্রতিকদের। তবে আজ বাবর আজমের অধীনে সেই ইতিহাস পাল্টে বিনা উইকেটে ভারতকে হারিয়ে নতুন ইতিহাস গড়ল পাকিস্তান।

রবিবার (২৪ অক্টোবর) দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ১৩ বল হাতে রেখেই ভারতকে ১০ উইকেটে হারিয়ে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সূচনা করল পাকিস্তান। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মিলিয়ে ভারতের বিপক্ষে এটাই পাকিস্তানের প্রথম জয়।

জয়ের পর বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ানকে অভিনন্দন জানান ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ছবি: এএফপি

এদিন টসে জিতে আগে ভারতকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় পাক অধিনায়ক বাবর আজম। আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৫১ রান সংগ্রহ করে বিরাট কোহলির দল।

ভারতের দেওয়া ১৫২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ১৭.৫ ওভারে বিনা উইকেটে সহজেই জিতে যায় পাকিস্তান। শত চেষ্টা করেও দুই ওপেন জুটি মোহাম্মদ রিজওয়ান ও বাবর আজমের জুটি ভাঙতে পারেনি যশপ্রীত বুমরা-ভুবনেশ্বর কুমাররা। হেসে খেলে কোহলিদের টপকে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন পাক দুই ওপেনার।

তবে ক্যারিয়ারের প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে নেমে প্রথম ম্যাচেই তাক লাগিয়ে দিয়েছেন বাবর আজম। অধিনায়ক হিসেবে দলকে জিতিয়ে বঝিয়ে দিয়েছেন এবারের বিশ্বকাপ আসরে পাকিস্তানও ফেবারিট। পাকিস্তানের এই জয়ে বাবর আজম করেন ৫২ বলে ৬ চার ২ ছক্কায় ৬৮ রান। অন্যদিকে মোহাম্মদ রিজওয়ান ৫৫ বলে ৬ চার ৩ ছক্কায় ৭৯ রান করে অপরাজিত থাকেন।

শাহিন আফ্রিদি। ছবি: রয়টার্স

এর আগে টসে হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে অধিনায়ক বিরাট কোহলির হাফসেঞ্চুরিতে ভর করে ১৫১ রান সংগ্রহ করে ভারত। পাকিস্তানের বোলিংয়ের সামনে যেন দাঁড়াতেই পারছিলনা কোহলি বাহিনীরা। শুরু থেকেই তাদের ব্যাটিং-অর্ডারে ধ্বস নামান শাহিন আফ্রিদি। ভারতের ইনিংসে প্রথম তিন ওভারের মধ্যে বিপজ্জনক দুই ওপেনার রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুলকে তুলে নেন তিনি। এরপর ফিফটি তুলে নেওয়া কোহলিকেও ফেরান ১৮.৪ ওভারে।

কোহলি ছাড়া রিসাব পন্ত করেছেন ৩৯ রান। খেলেছেন ৩০ বলে ২ চার ও ২ ছক্কায়। এছাড়া সূর্যকুমার জাদব ১১ রান, রবিন্দ্র যাদেজা ১৩ রান ও হার্ডিক পান্ডেয়া ১১ রান করেন।

পাকিস্তানের হয়ে শাহিন আফ্রিদি ৩টি, হাসান আলী ২টি, শাহদাব খান ও হ্যারিস রউফ ১টি করে উইকেট নিয়েছেন।

ম্যাচ সেরা হয়েছেন শাহিন আফ্রিদি।

খেলা শেষে খেলোয়াড়দের সেলফি। ছবি: এএফপি

সাহস২৪.কম/এসকে.

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?