হেরে গেলো বাংলাদেশ

প্রকাশ : ২৩ জুলাই ২০২১, ২১:২০

পুরো বিশ ওভার খেলতে পারল না মাহমুদউল্লাহ বাহিনী। এক বল বাকি থাকতেই অলআউট হয়ে যায় বাংলাদেশ। আর এতেই সিরিজ বাঁচিয়ে রাখল জিম্বাবুয়ে। শুক্রবার (২৩ জুলাই) তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২৩ রানে হেরেছে বাংলাদেশ। এতে সিরিজের ১-১ সমতায় ফিরেছে স্বাগিতক জিম্বাবুয়ে।

টানা পাঁচ ম্যাচ পর জিতেছে জিম্বাবুয়ে। এর আগে একমাত্র টেস্ট, তিনটি ওয়ানডেরে পর প্রথম টি-টোয়েন্টিতে হেরেছে স্বাগতিকরা। অনায়াশেই টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজ জিতেছে বাংলাদেশ। গতকাল বৃহস্পতিবার তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে নিজেদের শততম জয় উদযাপন করেছিল লাল সবুজের দল। আজ দ্বিতীয় ম্যাচে হেরেছে টাইগাররা। তবে এই টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি জিততে জিম্বাবুয়েকে অপেক্ষা করতে হলো পাঁচ ম্যাচ।

জিম্বাবুয়ের দেওয়া ১৬৭ রান তারা করতে নেমে নির্ধারিত ওভারের এক বল বাকি থাকতে ১৪৩ করেই অলআউট হয়েছে যায় বাংলাদেশ।

দলের হয়ে আজ ব্যাট হাতে কেউই জ্বলে উঠতে পারল না। প্রথম ম্যাচে দুই ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম ও সৌম্য সরকারের হাফসেঞ্চুরিতে জিতেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু আজ তারা দাঁড়াতেই পারেনি। মোহাম্মদ নাঈম মাত্র ৫ রান করে মুজারাবানির বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন। পরে পরেই ৮ রান করে ওই মুজারাবানির বলেই ক্যাচ দিয়ে ফেরেন সৌম্য সরকার।

এরপর তৃতীয় নাম্বারে ও চতুর্থ নাম্বারে নামা মেহেদী হাসান মিরাজ ও সাকিব আল হাসানও আশা জাগাতে পারেনি। ১৫ রান করে মাসাকাদজার বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন মিরাজ এবং ১২ রান করে ওই মাসাকাদজার বলেই ক্যাচ দিয়ে ফেরেন সাকিব। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহকেও ৪ রানে ফেরান মাসাকাদজা।

এরপর আফিফ হোসেন ও শামীম হোসেন কিছুক্ষণ আশা জাগালেও তা হতাশায় পরিণত করেন চাতারা ও লুক জঙ্গি। ২৫ বলে ১ চার ও ১ ছক্কায় ২৪ রান করা আফিফকে ফেরান চাতারা এবং ১৩ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় ২৯ রান করা শামীম হোসেনকে ফেরান লুক জঙ্গি। শামীম ফেরার আগে ৯ রানে নুরুল হোসেনকে ফেরান চাতারা। এরপর সাইফউদ্দিন ও তাসকিনকেও ফেরান লুক জঙ্গি। ১৯ রান করে ফেরে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন এবং ৫ রান করে ফেরেন তাসকিন আহমেদ। শূন্য রানে অপরাজিত থাকেন শরিফুল ইসলাম।

জিম্বাবুয়ের হয়ে লুক জঙ্গি ও ওয়েলিংটন মাসাকাদজা ৩টি করে এবং টেন্ডাই চাতার ও মুজারাবানি ২টি করে উইকেট নেন।

এর আগে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৬৬ রান সংগ্রহ করে স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে। দলের হয়ে বড় স্কোর করেন মাধেভেরি। তিনি ৫৭ বলে ৫ চার ৩ ছক্কায় ৭৩ রানের দুর্দান্ত একটি হাফসেঞ্চুরি করে শরিফুলের বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন।

এরপর চাকাভাকে ১৪ রানে ফেরান সাকিব আর ডিওন মায়ার্সকে ২৬ রানে ফেরান শরিফুল। পরে রায়ান বার্ল ১৯ বলে ২ চার ও ২ ছক্কায় ৩৪ রান করে অপরাজিত থেকে যান। এছাড়া ওপেনার মারুমানি ৩ রান ও লক জঙ্গি ২ রান করে আউট হন।

বাংলাদেশের হয়ে শরিফুল ইসলাম ৩টি এবং মেহেদী হাসান মিরাজ ও সাকিব আল হাসান ১টি করে উইকেট নেন।

ম্যাচ সেরা হয়েছেন ওয়েশলি মাধেভেরি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?