শর্ত মেনে আমিরকে দলে ফিরতে হবে: মিসবাহ

প্রকাশ : ১৯ জুন ২০২১, ১৮:১৬

সাহস ডেস্ক

আসছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এই বিশ্বকাপকে ঘিরে পাকিস্তানের জাতীয় দলে মোহাম্মদ আমিরকে ফেরানোর দাবি উঠেছে। কিছুদিন আগে দেশটির কিংবদন্তি ফাস্ট বোলার ওয়াসিম আকরামই আগে সে কথা বলেছিলেন। কিন্তু জাতীয় দলে ফেরার আগে আমিরকে কিছু শর্ত মানতে হবে বলে দিয়েছেন পাকিস্তানের কোচ মিসবাহ-উল-হক।

মিসবাউল বলেন, পাকিস্তান দলে ফিরতে হলে আমিরকে ফিটনেস প্রমাণ করতে হবে, মাঠে ভালো খেলতে হবে এবং দলে ফেরার আগে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা তুলে নিতে হবে।

গত বছরের ডিসেম্বরে মাত্র ২৯ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলে দিয়েছিলেন আমির। পাকিস্তান দলের প্রধান কোচ মিসবাহ ও বোলিং কোচ ওয়াকার ইউনিসকে দোষারোপ করে অবসরের ঘোষণা দিয়েছিলেন বাঁহাতি ফাস্ট বোলার।

যদিও সে ঘোষণা থেকে মৌখিকভাবে অনেকটা ফিরে এসেছেন আমির। ডিসেম্বরে অবসর ঘোষণার কয়েক দিনের মধ্যেই জানিয়েছিলেন, তিনি পাকিস্তান দলে তখনই ফিরবেন, যখন মিসবাহ-ওয়াকারের বর্তমান কোচিং প্যানেল পাকিস্তান দল থেকে সরে যাবে। এরপর গত জুনে আবার পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াসিম খানের সঙ্গে আলাপের পর আমির জানান, সবকিছু ঠিক থাকলে তিনি আবার পাকিস্তান জাতীয় দলে খেলবেন।

কিন্তু আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু তো এখনো জানাননি। সে কারণে তার পাকিস্তান দলে ফেরা, তা-ও মিসবাহ-ওয়াকার জাতীয় দলের কোচিংয়ের দায়িত্বে থাকা অবস্থায়...এ নিয়ে সংশয় তো থাকেই। এর মধ্যে সংবাদ সম্মেলনে আমিরের জাতীয় দলে ফেরার প্রসঙ্গে প্রশ্ন গেল মিসবাহর দিকে।

ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আগামী মাসে দুটি সিরিজ খেলবে পাকিস্তান। তার আগে গতকাল আয়োজিত এই সংবাদ সম্মেলনে আমিরকে নিয়ে প্রশ্নে মিসবাহ বললেন, ‘আগেও যেমনটা বলেছি, আমিরকে দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছিল ওর চোট আর পারফরম্যান্সের পড়তির কারণে। এরপর ও অবসরই ঘোষণা করে দিল। ও যদি অবসরের ঘোষণা ফেরত নেয়, ভালো খেলতে থাকে, সে ক্ষেত্রে অন্য যে কোনো খেলোয়াড়ের মতো ওর জন্যও জাতীয় দলের দরজা খোলা থাকবে।’

আমির তাঁর অবসর ঘোষণায় মিসবাহ-ওয়াকারদের আচরণকে কারণ হিসেবে দেখালেও মিসবাহ বলছেন উল্টো কথা। আমিরের সঙ্গে তাঁর ব্যক্তিগত কোনো দ্বন্দ্ব নেই জানিয়ে পাকিস্তান কোচ সংবাদ সম্মেলনে বললেন, ‘ওর সঙ্গে আমার ব্যক্তিগত কোনো ঝামেলা নেই, এটাও আগেই বলেছি। আমি পাকিস্তান দলের অধিনায়ক থাকার সময়ে ও (স্পট ফিক্সিংয়ের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে) দলে ফিরেছে, পরে আমি কোচ হওয়ার সময়েও দলে ছিল। গত বছর কিছু পারিবারিক ঝামেলার কারণে আমাদের সঙ্গে ইংল্যান্ড সফরে যেতে পারেনি, কিন্তু পারিবারিক সেই ঝামেলাগুলো মিটে যেতেই ওকে আমরা দলে ফিরিয়েছি।’

পেছনের ঘটনা পেছনে ফেলে রেখেই সামনে আগাতে চান মিসবাহ, ‘আমি জানি না কেন এটা (মিসবাহদের সঙ্গে আমিরের দ্বন্দ্ব) নিয়ে ইস্যু বানানো হলো, কেনই-বা আমির এভাবে ভাবল। কিন্তু এখন ও যদি দলে ফেরার জন্য তৈরি থাকে, ভালো খেলে, দলের ওকে দরকার হয়, তাহলে আমরা ওকে আবার জাতীয় দলের জন্য বিবেচনা করব। আগে যা হয়েছে, হয়েছে। ওসব নিয়ে আমি ভাবি না।’

ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের জন্য আগামীকাল লাহোরে পাকিস্তান দলের খেলোয়াড়দের একত্রিত হওয়ার কথা। সেখানে পাঁচ দিন নিজ নিজ কক্ষে আইসোলেশনে থাকবেন তাঁরা। এরপর বের হবেন সফরে। ইংল্যান্ডে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলবে পাকিস্তান, এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজে খেলবে পাঁচটি টি-টোয়েন্টি ও দুটি টেস্ট। সূত্র: প্রথম আলো।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?