শিরোপার স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখল জিদানের রিয়াল

প্রকাশ : ১৪ মে ২০২১, ০৫:৩০

ক্রীড়া ডেস্ক

গত পরশু অনুশীলনের সময়ে রিয়াল কোচ জিনেদিন জিদানের সঙ্গে ঝগড়া হয়েছে ব্রাজিলিয়ান তারকা মার্সেলোর। এ কারণে আজ গ্রানাদার বিপক্ষে রাখা হয়নি এই মিডফিল্ডারকে। রিয়াল বসের সঙ্গে ঝগড়ার কারণেই দল থেকে বাদ পড়তে হয়েছে মার্সেলোকে। তা-ও এমন সময়ে মার্সেলো বাদ পড়লেন, যখন কিনা এখন রিয়ালের মূল লেফটব্যাক মেন্দি চোটের কারণে মাঠের বাইরে! খবর- ফুটবলবিষয়ক সাইট গোলডটকমের।

তবে মার্সেলো বাদ পড়লেও সুযোগের দরজা খুলে যায় স্প্যানিশ মিগুয়েল গুতিরেজের। আজকেই তার অভিষেক ম্যাচ। আর এই ম্যাচেই দেখিয়েছেন চমক। গ্রানাদার মাঠে ম্যাচের তখন ১৭ মিনিট। বাঁ প্রান্ত থেকে বাতাসে ভাসানো পাস গ্রানাদা বক্সে ফেলেন মিগুয়েল। গ্রানাদা ডিফেন্ডার বলটি পাবেন বলে মনে হলেও উল্টো দিক থেকে দৌড় শুরু করা লুকা মদরিচ পেয়ে যান বল। ১৯ বছর বয়সী এই লেফট ব্যাকের নিখুঁত পাসে গ্রানাদা গোলরক্ষক রুই সিলভার দুই পায়ের ফাঁক গলে গোল করেন ক্রোয়েশিয়ান মিডফিল্ডার লুকা মদরিচ।

লা লিগায় রিয়ালের হয়ে অভিষেকেই মিগুয়েলের এই বুদ্ধিদীপ্ত পাস জিদানকে নিশ্চয়ই ভাবাবে। বয়সভিত্তিক দল থেকে উঠে আসা মিগুয়েল এমনিতেই জিদানের প্রিয়পাত্র। কে জানে, আগামী মৌসুমে হয়তো তাকে নিয়মিত দেখা যেতে পারে রিয়ালের বাঁ প্রান্তে!

তবে এই মৌসুমের লড়াইয়ের গল্প এখনো শেষ হয়নি। স্প্যানিশ লা লিগার ম্যাচে বৃহস্পতিবার (১৩ মে) দিবাগত রাতে গ্রানাদার মাঠে ৪-১ গোলের জয় পেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। গ্রুরুত্বপূর্ণ এই জয়ে শীর্ষে থাকা অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের চেয়ে দুই পয়েন্ট কম নিয়ে ও বার্সেলোনাকে হটিয়ে দ্বিতীয়তে উঠে শিরোপা স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখল জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা।

৩৬ ম্যাচে ৭৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয়তে উঠে এসছে রিয়াল মাদ্রিদ। সমান ম্যাচে ৮০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। সমান ম্যাচে ৭৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তিনে নেমে গেছে বার্সেলোনা। এই তিন দলের হাতেই রয়েছে আর ২টি করে ম্যাচ। অ্যাথলেটিকো বাকি দুই ম্যাচ জিতলেই চ্যাম্পিয়ন। কিন্তু ডিয়েগো সিমিওনের দল পয়েন্ট হারালে নাটক আরও জমে উঠবে।

তারুণ্য ও অভিজ্ঞতার মিশেলে প্রথম গোলটি পাওয়ার পর ধার বেড়ে যায় জিদান শিষ্যদের। বিরতিতে যাওয়ার আগে গোলের দেখা পান রদ্রিগো। ম্যাচের ৪৫+১ মিনিটে গ্রানাদা ডিফেন্ডারের ভুলের সুযোগ নিয়ে ডান প্রান্ত দিয়ে বক্সে ঢুকে কোনাকুনি শটে গোল করে দলকে আবারও এগিয়ে দেন রদ্রিগো। গ্রানাদা তখনো রিয়ালের গোলপোস্ট তাক করে একটি শট নিতে পারেনি! পরে প্রথমার্ধে আর কোনো গোল না হলে এই ২-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় রিয়াল মাদ্রিদ।

বিরতি থেকে ফিরে এসে গ্রানাদার খেলার ধার বাড়ান বদলি নামা সুয়ারেজ। ম্যাচের ৭১ মিনিটে তার শট কোর্তোয়া রুখে দিলেও ফিরতি বলে গোল করেন জোর্গে মলিনা। এতে ২-১ গোলে পিছিয়ে থাকে গ্রানাদা। এর চার মিনিট পর রিয়ালকে এবার এগিয়ে দেন বদলি হয়ে মাঠে নামা ওদ্রিওসোলা। ম্যাচের ৭৫ মিনিটে বাঁ প্রান্ত দিয়ে গড়া আক্রমণে বল পাবেন ভেবে ওপরে উঠে এসেছিলেন ওদ্রিওসোলা। বল পেয়ে বক্সের বাইরে থেকে বাঁ পায়ের শটে গোল করেন তিনি। তবে এই গোলটি ভবিষ্যৎতে রিয়ালের হয়ে রাইটব্যাক হিসেবে তার খেলার সুপারিশ করবে।

এর পরের মিনিটেই গ্রানাদার গোলরক্ষকের ভুলে গোল পেয়ে যান ফরাসি ফরোয়ার্ড করিম বেনজেমা। ম্যাচের ৭৬ মিনিটে বক্সের বাইরে এসে পাস ঠিকমতো দিতে পারেননি গ্রানাদার গোলরক্ষক সিলভা। সেখান থেকে বল পেয়ে ৪০ গজ দূর থেকে শট করে ফাঁকা জালে বল পাঠান করিম বেনজেমা। মাত্র ৬ মিনিটের মধ্যে তিন গোলের দেখা পাইয়ে দেয় দুই দল।

পরে ম্যাচের বাকি সময়ে আর কোনো গোল না হলে এই ৪-১ গোলের জয় নিয়ে শিরোপা স্বপ্নের আশা বাঁচিয়ে রেখেছে জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা।

এই জয়ে ৩৬ ম্যাচে ৭৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয়তে উঠে এসছে রিয়াল মাদ্রিদ। সমান ম্যাচে ৮০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। সমান ম্যাচে ৭৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তিনে নেমে গেছে বার্সেলোনা। এদিকে সমান ম্যাচে ৭৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চতুর্থস্থানে আছে সেভিয়া।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?