৯০ রানে বিদায় তামিম, সেঞ্চুরির পথে শান্ত

প্রকাশ : ২১ এপ্রিল ২০২১, ১৫:৪৯

ক্রীড়া ডেস্ক

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের আজ প্রথম ম্যাচে টসে জিতে ব্যাটিং নিয়েছে বাংলাদেশ। বুধবার (২১ এপ্রিল) ক্যান্ডির পাল্লেকেলে স্টেডিয়ামে স্বাগতিকদের মুখোমুখি হয়েছে মুমিনুল বাহিনীরা।

ব্যাটিংয়ে নেমেই ধ্রুত উইকেটের পতন ঘটে টাইগারদের। দেশ সেরা ওপেনার তামিম ইকবালের সাথে জুটি গড়তে নামেন সাইফ হাসান। কিন্তু তার আর জুটি গড়া হলোনা। দলিয় ৮ রানের মাথায় ঘটল তার পতন। মাত্র ৬ বল খেলে এলবিডব্লিউ হয়ে শূন্যরানেই বিদায় নিয়েছেন সাইফ। পেসার বিশ্ব ফার্নান্দোর করা ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন সাইফ। যদিও শুরুতে নট আউটের ইশারা করেন ফিল্ড আম্পায়ার। কিছুক্ষণ ভেবেচিন্তে রিভিও নেন স্বাগতিক অধিনায়িক দিমুথ করুণারত্নে। রিপ্লেতে স্পষ্ট দেখা যায় বল লাইনে পড়ে স্ট্যাম্পে আঘাত হানতো। ফলে রানের খাতা খোলার আগেই বিদায় নেন সাইফ।

এরপর নামেন নাজমুল হোসাইন শান্ত। এদিকে এক পাশ থেকে ওয়ানডে মেজাজে খেলছিলেন তামিম ইকবাল। শান্ত যোগ্য সঙ্গই দিচ্ছিলেন তামিমকে। ওয়ানডে মেজাজে খেলে তামিম ৫৩ বলেই তুলে নেন ফিফটি। এর মধ্যে ৪০ রানই আসে বাউন্ডারি থেকে। এই ফিফটিটি তামিমের টেস্ট ক্যারিয়ারের ২৯তম ফিফটি।

তামিম ফিফটির দেখা পাওয়ার পর রানের গতি কিছুটা কমে আসে। দ্বিতীয় সেশনে লঙ্কান বোলাররাও গুড লেন্থ খুঁজে পান। এরমধ্যেও ১২০ বলে ৭ চারে ফিফটি তুলে নেন শান্ত। এটি তার ক্যারিয়ারের মাত্র দ্বিতীয় টেস্ট ফিফটি। অন্যপ্রান্তে তামিম ছুটছিলেন সেঞ্চুরির দিকে। কিন্তু সেঞ্চুরি আর করতে পারলেন না। থেমে গেলেন ৯০ রানে! ১০১ বলে ১৫টি চার মেরে বিশু ফার্নান্দোর বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন দেশ সেরা এই বাঁহাতি ওপেনার। তবে শান্তকে নিয়ে ১৪৪ রানের একটি জুটি গড়েন তামিম।

এরপর নামেন অধিনায়ক মুমিনুল। তাকে নিয়ে ধিরে ধিরে সেঞ্চুরির দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন শান্ত। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ২ উইকেট হারিয়ে ২০৩ করেছে বাংলাদেশ। যেখানে ১০ চার ১ ছক্কায় ৮১ রান করেন শান্ত এবং ৩ চারে ২১ রান করেন মুমিনুল। দুজনেই ব্যাট করছেন।

এদিন তিন পেসার নিয়ে একাদশ সাজিয়েছে বাংলাদেশ। সাম্প্রতিক ম্যাচগুলোর বিবেচনায় এই ম্যাচে বেশ ইতিবাচক একাদশ গড়েছে টাইগাররা। দলে আছেন তিন পেসার- তাসকিন আহমেদ, আবু জায়েদ রাহি এবং ইবাদত হোসেন। স্পিনার আছেন ২ জন-মেহেদী হাসান মিরাজ ও তাইজুল ইসলাম। অবশ্য অলরাউন্ডারের ভূমিকাতেও থাকছেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

অন্যদিকে শ্রীলঙ্কার একাদশে ফিরেছেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর মিস করা এই অলরাউন্ডার দীনেশ চান্ডিমালের জায়গায় ঢুকেছেন। ফিরেছেন লাহিরু কুমারাও। স্বাগতিকরাও দলে তিন পেসার রেখেছে। তবে বিশেষজ্ঞ স্পিনার মাত্র একজন, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা।

বাংলাদেশ একাদশ:
মুমিনুল হক (অধিনায়ক), লিটন কুমার দাস (উইকেটরক্ষক), মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল, আবু জায়েদ চৌধুরি, তাইজুল ইসলাম, নাজমুল হোসেন শান্ত, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাসকিন আহমেদ, ইবাদত হোসেন, সাইফ হাসান।

শ্রীলঙ্কা একাদশ:
দিমুথ করুণারত্নে (অধিনায়ক), লাহিরু থিরিমান্নে, ওশাদা ফার্নান্দো, পাথুম নিশাঙ্কা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, নিরোশান ডিকভেলা (উইকেটরক্ষক), ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, সুরাঙ্গা লাকমল, লাহিরু কুমারা, বিশ্ব ফার্নান্দো।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?