১০ জনের আতালান্তার বিপক্ষে রিয়ালের কষ্টার্জিত জয়

প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৫:০০

সাহস ডেস্ক
ছবি: সংগৃহীত

ম্যাচের ১৭ মিনিটেই লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন আতালান্তার রেমো ফ্রয়েলার। পরে ১০ জনের দল হয়ে পরে আতালান্তা। এতে দারুন জয়ের সুযোগ পেয়ে যায় জিদান শিষ্যরা। কিন্তু রিয়াল জিতেছে ঠিকই তবে বেশ ঘাম ঝারিয়ে জিততে হয়েছে তাদের। চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে ফারলাঁ মেন্ডির একমাত্র গোলে ১০ জনের আতালান্তার বিপক্ষে কষ্টার্জিত জয় নিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালের পথে এগিয়ে থাকল স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ।

বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে বেরগামো স্টেডিয়ামে জিয়ান পিয়েরো গাসপিরিনির শিষ্যদের ১-০ গোলে হারিয়েছে জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা।

যদিও ইনজুরির কারণে রিয়ালের বেশ কয়েকজন তারকা খেলোয়াড়রা অবশ্য মাঠের বাইড়ে ছিলেন। সের্হিও রামোস, করিম বেনজেমা, দানি কারভাহাল, এডেন হ্যাজার্ডদের মতো খেলোয়াড়ের অনুপস্থিতির ছাপই পড়ছিল তাদের খেলায়। আতালান্তার রক্ষণ ভাঙতে হিমশিম খেয়েছে রিয়াল বাহিনী। রিয়ালের মতো দল ১০ জনের আতালান্তার বিপক্ষে ম্যাচের প্রথমার্ধজুড়ে গোলে মাত্র একটি শট নিয়েছে! দ্বিতীয়ার্ধেও আতালান্তার প্রাণপাত করা রক্ষণের সামনে অসহায় লেগেছে রিয়ালকে। তবে রিয়ালকে বাঁচিয়ে দিয়েছেন মেন্ডি। ম্যাচের ৮৬ মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে দারুন এক বাঁকানো শটে জয়সূচক একমাত্র গোল করেন ফরাসি ডিফেন্ডার ফারলাঁ মেন্ডি।

প্রথম দল হিসেবে কাল চ্যাম্পিয়নস লিগের নকআউট পর্যায়ে শততম ম্যাচ খেলতে নেমেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। মেন্ডির চমৎকার গোলটি সেই উপলক্ষের মুখ রক্ষা করেছে।

এদিকে, গত মৌসুমে সংস্কারকাজের জন্য নিজেদের মাঠে চ্যাম্পিয়নস লিগ লেখতে পারেনি আতালান্তা। তাদের প্রতিটি ‘হোম’ ম্যাচ খেলতে হয়েছিল মিলানের সান সিরোয়। কিন্তু গত রাতে নিজেদের মাঠেই চ্যাম্পিয়নস লিগের প্রথম ‘নকআউট’ ম্যাচ খেলতে নামে আতালান্তা। শুরুটা অবশ্য দুঃস্বপ্নের মতোই হয়েছে তাদের। ম্যাচের ১৭ মিনিটেই মেন্ডির একটি আক্রমণ প্রতিহত করতে গিয়ে বাজে ফাউল করে বসেন ফ্রয়েলার। রেফারি সঙ্গে সঙ্গেই লাল কার্ড দেখান তাকে। লাল কার্ড দেখে তিনি মাঠ ছাড়লে ১০ জনের দলে পরিণত হয় আতালান্তা।

খেলার শুরুতেই প্রতিপক্ষের একজন খেলোয়াড় কমে যাওয়ার সুবিধাটা কাজে লাগাতে পারলো না রিয়াল। পুরো ম্যাচেই রিয়ালের ফুটবলারদের খেলার জন্য পর্যাপ্ত জায়গা ছাড়েনি আতালান্তা। এটা তাদের কৃতিত্ব। বিশেষ করে কোনো দল যখন খেলার শুরুতেই ১০ জনের দলে পরিণত হয়। এই দলটিই গত মৌসুমে ইউরোপের সেরা ক্লাব প্রতিযোগিতার কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠে চমক দেখিয়েছিল।

তবে প্রথম লেগে ১-০ গোলের হারটা নাগালের ভিতরেই আছে আতালান্তার। দ্বিতীয় লেগে রিয়ালের মাঠে জিততে পারলেই কোয়ার্টার ফাইনালের স্বপ্ন পূরণ হতে পারে আতালান্তার।

১০ জনের আতালান্তার বিপক্ষে কষ্টার্জিত জয়ের পর সংবাদমাধ্যমকে রিয়াল কোচ জিনেদিন জিদান বলেছেন, ‘আমি জয় নিয়ে ভাবি। কীভাবে জয়টা এল, সেটি আমার বিষয় নয়। আতালান্তার বিপক্ষে শেষ পর্যন্ত আমরা জিতেছি, এটিই বড় কথা। তবে এটা ঠিক, ম্যাচে আমরা মোটেও ভালো খেলতে পারিনি।’

জিদান আরো বলেন, ‘আপনি ১০ জনের একটা দলের বিপক্ষে খেলছেন, কিন্তু সেখানে খেলার পর্যাপ্ত জায়গা না পাওয়া কঠিন। তবে আমাদের জন্য গোল পাওয়াটাই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। সেটি পেয়েছি। বিশেষ করে প্রতিপক্ষের মাঠের গোল।’

আগামী ১৭ মার্চ দ্বিতীয় লেগে রিয়ালের মাঠে মুখোমুখি হবে দুই দল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?