নিষ্প্রভ রোনালদো, বার্সার পর জুভেন্টাসের হার

প্রকাশ : ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৩:৪২

সাহস ডেস্ক

একদিন আগে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে প্যারিসের চ্যাম্পিয়ন দল পিএসজির বিপক্ষে বিশাল ব্যবধানে হেরেছে লিও মেসির বার্সেলোনা। এবার শক্তিমত্তার দিক থেকে পিএসজির তুলনায় ছোটো দল এফসি পোর্তোর বিপক্ষে হেরেছে রোনালদোর জুভেন্টাস।

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে স্তাদিও ডু ড্রাগাও স্টেডিয়ামে আন্দ্রে পিরলোর শিষ্যদের ২-১ গোলে হারিয়েছে পোর্তো।

২০০৪ সালে চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতার স্বাদ নেওয়া পোর্তো কাল রাতে প্রথমবারের মতো হারিয়ে দিয়েছে জুভেন্টাসকে। পোর্তোর হয়ে গোলদুটি করেছেন মেহদী তারেমি ও মুসা মারেগা। জুভিদের হয়ে একমাত্র গোলটি করেছেন ফেদেরিকো কিয়েসা।

এদিন খেলার শুরুতেই জুভেন্টাসের ভুলে এগিয়ে যায় পোর্তো। জুভ তারকা রদিগ্রো বেনতেনচারের দুর্বল ব্যাক পাস থেকে ছোঁ মেরে বল নিয়ে ম্যাচ শুরুর মাত্র ৬৩ সেকেন্ডেই জুভদের জাল খুঁজে নেন পোর্তোর মেহদী তেরেমি। এতে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় পোর্তো।

রোনালদোকে কাল তেমন একটা খুঁজে পাওয়া যায়নি মাঠে। আর তিনি নিষ্প্রভ থাকলে কী হয়, সেটি জুভেন্টাস ভালোই বুঝেছে। পেপের নেতৃত্বে নিজ দেশের ক্লাব পোর্তোর রক্ষণ সৈনিকেরা পর্তুগিজ তারকাকে রীতিমতো বোতলবন্দী করেই রেখেছিলেন। ক্যারিয়ারের শুরুতে স্পোর্টিং লিসবনের হয়ে খেলার সময় পোর্তো ছিল রোনালদোর চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ক্লাব। সেই তাদের কাছেই কিনা জুভেন্টাসের হয়ে বন্দী হয়ে রইলেন তিনি! এর আগে পিএসজি ও বার্সেলোনার ম্যাচেও তেমন একটা দেখা যায়নি দলের সেরা তারকা লিওনেল মেসিকে। যদিও পেনাল্টির মাধ্যমে একটি গোল করেছিলেন মেসি। কিন্তু কাল রোনালদোকে একদমই খুঁজে পাওয়া যায়নি। তবে প্রথমার্ধ শেষ হয়েছে এই ১-০ গোলে।

দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে এসেই আবারো জুভিদের পেছনে ফেলল পোর্তো। দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচ শুরুর মাত্র ১৯ সেকেন্ডের মাথায় এগিয়ে যায় পোর্তো। ডান দিক থেকে উইলসন মানাফার পাস ডি-বক্সে নিয়ন্ত্রণে নিচু শটে জুভিদের জালে বল জড়ান মালির ফরোয়ার্ড মুসা মারেগা। এতে ২-০ গোলে পিছিয়ে পড়ে জুভেন্টাস।

পিছিয়ে পড়ে সমতায় ফিরতে মরিয়া জুভেন্টাসের শেষ ২০ মিনিটে খেলায় কিছুটা প্রাণ প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। বেশ কিছু আক্রমণে গোলের সুযোগ তৈরি করে তারা। এতে একটি গোল শোধ করে জুভিরা। ম্যাচের ৮২ মিনিটে বাঁ দিক থেকে রাবিওর ক্রস ডি-বক্সে ফাঁকায় পেয়ে জোরালো শটে গোলটি করেন ফেদেরিকো চিয়েসা। এতে ২-১ গোলে পিছিয়ে থাকে জুভেন্টাস।

তবে দেরিতে গোলটি পেলেও কিয়েসার গোলটি যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। কে জানে এই গোলটিই হয়তো জুভেন্টাসের শেষ আটে পৌঁছাতে বড় ভূমিকা রাখবে। এখানে একটা তথ্য দেওয়া যেতে পারে, ২০১৮ সালের পর কিয়েসাই রোনালদোর বাইরে প্রথম জুভেন্টাস ফুটবলার, যিনি চ্যাম্পিয়নস লিগের নক আউট পর্যায়ে গোল করলেন। তিন বছর আগে শেষবার গোল করেছিলেন ব্লেইস মাতুইডি।

ম্যাচে নিজের ছায়া হয়েই ছিলেন রোনালদো। বলার মতো কোনো সুযোগ তৈরি করতে পারেননি। তবে যোগ করা চার মিনিটের শেষ মুহূর্তে পর্তুগিজ যুবরাজ ডি বক্সের মধ্যে প্রতিপক্ষের বাধায় পড়ে গেলে পেনাল্টির আবেদন করেছিল জুভরা। ভিআর দেখে রেফারি সেটি প্রত্যাখ্যান করেন। ফলে নিজের দেশের দলের বিপক্ষে হার এড়ানো সম্ভব হয়নি রোনালদোর।

আগামী ৯ মার্চ দ্বিতীয় লেগে ঘরের মাঠে পোর্তোর মুখোমুখি হবে জুভেন্টাস।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?