ম্যানচেস্টার সিটির কিংবদন্তি ফুটবলার কলিন বেল মারা গেছেন

প্রকাশ : ০৬ জানুয়ারি ২০২১, ১২:৫৪

সাহস ডেস্ক

ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার সিটির কিংবদন্তি ফুটবলার কলিন বেল মারা গেছেন। গত কয়েক মাস ধরেই বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন তিনি। মৃত্যুর আগে তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর।

বুধবার (৬ জানুয়ারি) এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবটি।

বেলের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে সিটি বিবৃতিতে বলেছে, ‘সিটির হয়ে এমন অর্জন হাতেগোনা কয়েক জন খেলোয়াড়ের আছে।’বেলের সম্মানে সিটির মাঠে একটি স্ট্যান্ড করা হয় ২০০৪ সালে। সমর্থকদের ভোটে এই স্ট্যান্ড নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সিটির চেয়ারম্যান খালদুন আল মোবারক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘কলিন বেল ম্যানচেস্টার সিটির অন্যতম সেরা খেলোয়াড় হিসেবে আমাদের স্মরণে থাকবেন। তার চলে যাওয়া ক্লাবের সবাইকে ব্যথিত করেছে।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘আমি তার সাবেক ম্যানেজার এবং সতীর্থদের সঙ্গে প্রতিনিয়ত যোগাযোগ রাখতে সক্ষম হওয়ায় গর্বিত।’ সিটির হয়ে খেলার দিনগুলোতে তারকা বনে যাওয়া বেল ক্যারিয়ার শুরু করেন বুরিতে।’

১৯৬৬ থেকে ১৯৭৯ সাল পর্যন্ত ম্যানসিটির জার্সিতে ৫০১ ম্যাচ খেছেন ইংল্যান্ডের এই মিডফিল্ডার। এই দীর্ঘ সময়ে সিটিজেনদের হয়ে ১৫৩টি গোল করেছিলেন। ইংল্যান্ড জাতীয় দলের হয়ে ৪৮ ম্যাচে মাঠে নেমেছিলেন তিনি।

'বক্স টু বক্স' মিডফিল্ডার হিসেবে কিংবদন্তিতুল্য ছিলেন বেল। তাকে বলা হতো 'কিং অব কিপাক্স'। সমর্থকদের কাছে তিনি সত্যিকার অর্থেই ছিলেন রাজার মতো। ২০১৪ সালে ভোটাভুটির মাধ্যমে বেলের সম্মানে ইতিহাস স্টেডিয়ামের একটি স্ট্যান্ডের নাম বদলে ফেলেন সিটির সমর্থকরা।

বুরির হয়ে ক্যারিয়ার শুরু করা বেল ১৯৬৫-৬৬ মৌসুমের মাঝামাঝিতে ৪৭ হাজার ৫০০ পাউন্ডের চুক্তিতে যোগ দেন। ওই সময় দ্বিতীয় বিভাগে নেমে যাওয়া সিটিকে প্রথম বিভাগে উত্তরণে সহায়তা করেন বেল। দুই বছর পর প্রথমবারের মতো প্রথম বিভাগের শিরোপা জেতার স্বাদ পায় দলটি।

সিটিতে ১৩ বছর কাটিয়ে এফএ কাপ, লিগ কাপ এবং উইনার্স কাপ জেতার স্বাদ পান বেল। তবে ১৯৭৫ সালের নভেম্বরে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে লিগ কাপের একটি ম্যাচে খেলার সময় হাঁটুতে চোট পান তিনি।

মাত্র ২৯ বছর বয়সে পাওয়া হাঁটুর চোটে মাঠ থেকে ছিটকে গেলেও একই মৌসুমের শেষদিকে ফিরে আসেন বেল। কিন্তু আর্সেনাল ম্যাচে ফের চোটে পড়ায় ১৮ মাসের জন্য ছিটকে যান।

১৯৭৭ সালে ফের মাঠে নামেন বেল, সিটির সমর্থকরা দাঁড়িয়ে তার প্রতি আবেগী সম্মান জানান। কিন্তু তার আগের সেই গতি ও খেলার ধরনে অনেকটা পরিবর্তন আসে। ফলে অল্প কিছু ম্যাচ খেলার পর সিটি ত্যাগ করেন তিনি। এরপর ক্যারিয়ার শেষ করেন যুক্তরাষ্ট্রের ক্লাব সান হোসে আর্থকোয়াকসে।

২০০৪ সালে ফুটবলে অবদান রাখায় এমবিই সম্মনে ভূষিত হন বেল। গত কয়েক মৌসুমে সিটির ম্যাচে দর্শকসারিতে নিয়মিত দেখা যেত তাকে।

সূত্র: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?