করোনা পরবর্তীকালীন পুষ্টি বিপর্যয়

প্রকাশ : ২০ জুলাই ২০২০, ১৩:২৭

সুমাইয়া আক্তার

আমরা সবাই কমবেশি কিছুটা হলেও চিন্তিত যে, কীভাবে এই করোনা পরিস্থিতি আমরা মোকাবেলা করতে পারি। তবে এইটাও ভাবতে হবে যে, এই পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠলেও, তারপরে আরও কি কি সমস্যার সম্মুখীন আমরা হতে পারি।

এইরকমই  একটি সমস্যা হবে ভিটামিন ডি এর ঘাটতি। হয়তো অবাক হয়ে ভাবছেন যে, এত কিছু থাকতে কেন এই বিষয় নিয়েই চিন্তা করতে বললাম? 

যতটা ছোট একটা পুষ্টি উপাদান হিসেবে ভাবছেন, তারচেয়েও হয়তো ছোট এই উপাদানটি। কিন্তু এর অভাব শরীরে সুদূরপ্রসারী প্রভাব রাখতে পারে। 

এই পরিস্থিতিতে কেউ স্বজন হারানোর বেদনায় কাতর। কেউবা ব্যস্ত আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে উঠতে। অনেকেই আবার লকডাউনে থেকে নিজেকে নিরাপদ মনে করছেন। কিন্তু যাই করুন না কেন, দীর্ঘ সময় ঘর বন্ধী এই মানুষ গুলো একসময় বাইরে বেরিয়েই আসবে পরিস্থিতি ভালো হলে। তখনি দেখা যাবে, সূর্যের আলোর অনুপস্থিতিতে দীর্ঘদিন থাকার ফলে, তাদের শরীরে ভিটামিন ডি এর ঘাটতি দেখা দিচ্ছে। হয়তো দেখা যাবে করোনা মোকাবেলা করা পুরো প্রজন্মটার, স্থায়ী ভাবে হাড় ক্ষয় হয়ে  বিভিন্ন সমস্যা দেখা যাবে পরবর্তীতে। 

কেউ হয়তো দুর্বল থাকবেন করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি হিসেবে। আর কেউ কিছু না বুঝেই দুর্বলতায় ভুগবেন। তার কারন হল ভিটামিন ডি এর অভাবে কিন্ত মানসিকভাবে  বিসাদ্গ্রস্থ হওয়া, ঘনঘন মেজাজ পরিবর্তন হওয়া,  হতাশাগ্রস্থ হওয়া, গায়ের চামড়া বিবর্ণ হয়ে যাওয়া,  ক্ষুধা মন্দা,  ওজন বেড়ে যাওয়া,  মাংসপেশিতে  ব্যথা বা দুর্বলতা,  হাড়ের ক্ষয় হয়ে যাওয়া বা হাড়ের সংযোগস্থলে ব্যথা সহ নানাবিধ লক্ষণ দেখা দিতে পারে। যার প্রভাব সুদূরপ্রসারী। 

আর মনে রাখবেন ভিটামিন ডি যদি শরীরে পর্যাপ্ত পরিমান তৈরি না হয়, তবে আপনি যতই ক্যালসিয়াম যুক্ত খাবার খান না কেন, তা কোনভাবেই আপনার হড়ের গঠনে সহায়তা করতে পারবেনা। যার ফলে স্থায়ীভাবে হাড় ক্ষয় হয়ে বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিবে পরবর্তিতে।

তাই যা করতে পারেন তা হল, দুপুরের (১১ টা- ৩টা)  রোদে ২০-৩০ মিনিট থাকতে পারেন। তাই বলে কিন্তু বাইরে যাবার পরামর্শ দিচ্ছি না। বারান্দা অথবা জানালায় বসতে পারেন,  ছাঁদ থাকলে সেখানেও ঘুরে আসতে পারেন একটু সময় করে। আর তাও সম্ভব না হলে ডিমের কুসুম, মাশরুম, তেল যুক্ত মাছ,  বাদাম, পনির,  গরুর কলিজা এবং চিংড়ি মাছ সহ বিভিন্ন খাবার প্রতিদিন আপনার খাদ্য তালিকায় রাখতে পারেন। এগুলো কিছুটা হলেও আপনার শরীরে ভিটামিন ডি এর ঘাটতি পূরণে সহায়তা করবে। তবে যেকোনো খাদ্য গ্রহণের পূর্বে অবশ্যই জেনে নিতে হবে যে, সেই খাবারটা তার শারীরিক কোন সমস্যার কারনে খাওয়া নিষেধ আছে কিনা!

কোভিড-১৯ ভাইরাসটি আমাদের জীবনে যা ক্ষতি করার তাতো করেই চলেছে। নিজের অজান্তে একে আর ক্ষতি করার সুযোগ দিবেন না।

লেখকঃ সুমাইয়া আক্তার, পুষ্টিবিদ, "মা টেলি-হেলথ সেন্টার"

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত