x

এইমাত্র

  •  পাঁচজন বিশিষ্ট নারীকে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব পদক-২০২২ প্রদান করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
  •  ভারতের পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য রাজস্থানে মন্দিরে পদদলিত হয়ে ৩ জন নিহত হয়েছেন
  •  জ্বালানি তেল ডিজেল, পেট্রল ও অকটেনের মূল্যবৃদ্ধির প্রজ্ঞাপনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট
  •  তাইওয়ানের পাশে সামরিক মহড়া অব্যাহত রাখবে চীন
  •  কওমি মাদ্রাসার শিক্ষা বোর্ডগুলোর সঙ্গে পূর্বনির্ধারিত ১০ আগস্টের বৈঠক স্থগিত করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

আজ রাতে মুক্তি পাচ্ছে লাকী আক্তারের গান ‘নয়া নয়া ফুল’

প্রকাশ : ৩০ ডিসেম্বর ২০২১, ১৮:৫৩

সাহস ডেস্ক

আর কিছুক্ষণে মধ্যেই ( ৩০ ডিসেম্বর)  বৃহস্পতিবার রাত ৮ টায়  অনলাইন প্লাটফর্মে মুক্তি পাচ্ছে স্লোগান কন্যা লাকী আক্তারের দ্বিতীয় একক গান ‘নয়া নয়া ফুল’ । গানটির কথা এবং সুর লাকী আক্তার নিজেই করেছেন বলে জানিয়েছেন সাহস২৪.কম কে। এর আগে ২০২১ এর ২৯ জুলাই পাভেল পার্থ’র কথা ও লাকী আক্তারের সুরে ‘গাছেদের কান্না’ শিরোনামে আরেকটি গান ইউটিউবে ‘Gaaner Lucky’ (গানের লাকী) প্রকাশিত হয়।

লাকী আক্তার জানান,‘ নয়া নয়া ফুল’ গানটি আমি ২০১৮ সালের ১৭ মে লিখি এবং সুর করি। এটি একটি নিখাদ প্রেমের গান। ক্যাম্পাসে গানের আড্ডায়, বন্ধুদের সাথে ঘরোয়া আয়োজনে আমি বহুবার এই গানটি গেয়েছি। তখন থেকেই বন্ধু-শুভাকাঙ্খীরা আমাকে গানটি আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করার জন্য উৎসাহ যুগিয়ে আসছেন। সেই উৎসাহ নিয়ে এই সঙ্গীত আয়োজন শেষ হয় চলতি বছরের জুন মাসে। দুজন তরুণ সঙ্গীত পরিচালক অভিজিৎ কুণ্ডু ও অভি চৌধুরি পার্থ যৌথভাবে সংগীত আয়োজন করেছেন।  বাংলা গানের শ্রোতাদের কাছে গানটি জনপ্রিয়তা পাবে বলে আমি গানের সাথে যুক্ত কলাকুশলিদের দৃঢ় বিশ্বাস। 

তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে ‘নয়া নয়া ফুল’-এর মিউজিক ভিডিও সম্পন্ন না হওয়ায় ইতোপূর্বে গান প্রকাশের তারিখ ঘোষণা করেও পিছিয়ে দিতে হয়। এই গানের ভিডিও ধারণের লোকেশন নির্বাচনেও একটি বড় সময় অতিবাহিত হয়। করোনা পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলে এই গানটির ভিডিও ধারণ করা হয় চাঁপাইনবাবগঞ্জের টিকইল গ্রামে। এ গ্রামটি আলপনা গ্রাম নামেও পরিচিত। ২০২১ সালের অক্টোবর মাসের শেষ সপ্তাহে গানটির শুটিং শেষ হয়।

লাকী আক্তার জানান, গানটির মিক্স-মাস্টারিং ও সাউন্ড ডিজাইনে ছিলেন রেজওয়ান সাজ্জাদ। বাঁশি বাজিয়েছেন অয়ন ইসলাম ওলি, সারেঙ্গীতে ছিলেন শৌনক দেবনাথ ঋক, একস্টিক গিটারে কাইয়ুম রেজা, বেজ গিটারে রেজোয়ান সাজ্জাদ এবং হারমনিয়ামে অভিজিৎ কুণ্ডু। এছাড়াও ব্যাঞ্জোতে ফতেহ আলী খান আকাশ, বাংলা ঢোলে ছিলেন সৌরব দাস গুপ্ত, কাহন এবং পার্কেশন বাজিয়েছেন অভি চৌধুরী পার্থ। এই গানের নান্দনিক পোস্টার নকশা করেছেন ইউডা চারুকলার শিক্ষার্থী সোহানা তাসনিমা এবং তরিক হাসনাত । স্কোর মিউজিক ল্যাব ও সারগাম স্টুডিওতে গানটির রেকর্ডিং হয়।

শিল্পীর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গানটির মিউজিক ভিডিওর নির্দেশনা ও সিনেমাটোগ্রাফিতে ছিলেন জাহিদুল ইসলাম সজীব। এসিটেন্ট ডিরেক্টর হিসেবে ছিলেন তরিক হাসনাত। এছাড়াও ড্রোন ক্যামেরায় চিত্র ধারণ করেছেন সৈয়দ মেহেদী হাসান। মিউজিক ভিডিও তৈরিতে টিকইল গ্রামের আলপনা বাড়ীর বাসিন্দাগন এবং টিকইল গ্রামের সাধারণ মানুষ এবং নেজামপুর ইউনিয়ন পরিষদ কর্তৃপক্ষ অত্যন্ত আন্তরিকতার সাথে সহযোগিতা করেছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালে শাহবাগ গণজাগরণ মঞ্চের বহুল আলোচিত স্লোগান কন্যা লাকী আক্তার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি সাহিত্যে পড়াশোনার পাশাপাশি ছাত্র রাজনীতিতে জড়িয়ে যান। বর্তমানে রাজনীতির পাশাপাশি উন্নয়ন সংস্থায় পরামর্শক হিসেবে কর্মরত আছেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত