বগি ভর্তি যাত্রী রেখে স্টেশন ছেড়েছে ট্রেন

প্রকাশ : ০৪ জুলাই ২০২২, ১৮:৩০

সাহস ডেস্ক

পঞ্চগড়গামী একতা এক্সপ্রেস যাত্রীভর্তি একটি বগি রেখেই রাজধানীর কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে ছেড়ে চলে গেছে। সোমবার (০৪ জুলাই) ট্রেনটি ছাড়ার সঠিক সময় সকাল ১০টা দশ মিনিট হলেও বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ট্রেনটি স্টেশন ছাড়ে। তবে কর্তৃপক্ষ বলছে, বগি বাতিলের বিষয়টি সকাল ৯টার সময় সবাইকে অবগত করা হয়েছে। আগে যারা বিষয়টি জেনেছেন, তারা অনেকে অন্য বগিতে উঠেছেন।

জানা গেছে, একতা এক্সপ্রেসের ‘ট’ নম্বর বগির জন্য ১০৫ জন যাত্রী টিকিট কেটেছিলেন। তাদের অধিকাংশ যাত্রী এ ঘটনায় ট্রেনটি মিস করেছেন। ট্রেনটির ‘ট’ নম্বর বগিতে আগে থেকেই ত্রুটি ছিল তাই সেটিকে বাতিল করা হয় এবং মূল ট্রেনের শেষে রাখা হয়। ফলে অনেক যাত্রী বগি বাতিলের তথ্য না জেনেই সেখানে উঠে পড়ে। একতা এক্সপ্রেসের ‘ট’ বগির যাত্রী অমেলা বেগম বলেন, স্টেশনে পৌঁছাতে কিছুটা দেরি হওয়ার পরেও তারা এসে দেখেন ৭ নম্বর প্ল্যাটফর্মে ট্রেনটি দাঁড়িয়ে আছে। পরে আসন নিশ্চিত করে ট্রেনে বসেন অমেলা বেগম। হঠাৎ জানতে পারেন বগি রেখেই একতা এক্সপ্রেস ট্রেন চলে গেছে। এ সময় বগিতে ১০০ থেকে ১৫০ জন যাত্রী ছিল। কিন্তু এ বিষয়ে কেউ কিছুই জানতেন না বলে জানান তিনি।

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার মাসুদ সারওয়ার বলেন, এ বিষয়ে ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল সকাল নয়টায়। কর্তৃপক্ষের কাছে অতিরিক্ত বগি ছিল না। পূর্বেই ট্রেনটি আসার পথে বগিতে কোন দুর্ঘটনা ঘটেছিল। এটা কি কারণে হয়েছে এ বিষয়ে কিছু জানেন না বলে জানান মি. মাসুদ। তার মতে, এ সমস্যা বগির মেটেরিয়ালস দুর্বলতা থেকে হতে পারে। পরবর্তী থেকে কোন কোচ এমন হলে রিপ্লেস করা হবে। এ ঘটনায় বগির যাত্রীদের টিকিট ফেরত নেওয়া হয়েছে। একতা এক্সপ্রেস (৭০৫) ট্রেনটি রাজধানী কমলাপুর স্টেশন থেকে পঞ্চগড়ের বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম রেলওয়ে স্টেশন (পঞ্চগড় রেলওয়ে স্টেশন) পর্যন্ত চলাচল করে।

সাহস২৪.কম/এসএস/এসটি/এএম.

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা এখন শূন্যের কোঠায় পৌঁছেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। আপনিও কি তাই মনে করেন?