ধামরাইয়ে তরুণ-তরুণীকে জিম্মি করে চাঁদা দাবি, আটক চার

প্রকাশ : ২৪ মে ২০২২, ১৮:৫৬

সাইফুল শাওন, সাভার

ঢাকার ধামরাই উপজেলায় তরুণ ও তরুণীকে জিম্মি করে চাঁদা দাবির অভিযোগে চারজনকে আটক করেছে র‍্যাব। মঙ্গলবার (২৪ মে) সকালে উপজেলার বারবাড়িয়া গ্রামের মোকলেছুর রহমানের বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। এসময় জিম্মি হওয়া তরুণ ও তরুণীকে উদ্ধার করা হয়েছে। র‍্যাব-৪-এর মানিকগঞ্জ ক্যাম্পের কমান্ডার লে. কমান্ডার আরিফ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আটক চার যুবক হলেন উপজেলার গাঙ্গুটিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ হাতকোড়া গ্রামের মৃত আব্দুল হকের ছেলে মো. আল-আমিন (৩০), কৃষ্ণপুরা গ্রামের মৃত মহর আলীর ছেলে মো. আরিফুজ্জামান ওরফে পিন্টু (৩৬), বারবাড়িয়া গ্রামের মো. আব্দুস সাত্তারের ছেলে আবু বকর সিদ্দিক (৩৫) ও চারিপাড়া গ্রামের আরিফুল ইসলাম (৩৭)।

স্থানীয় বাসিন্দা ও ভুক্তভোগীর স্বজনরা জানান, মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার দোতরা এলাকার সরকারি কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে ওই তরুণী কৃষি ডিপ্লোমায় প্রথম বর্ষ ও তরুণ তৃতীয় বর্ষে পড়াশোনা করেন। সোমবার (২৩ মে) ওই তরুণীর ব্যবহৃত মুঠোফোন নষ্ট হয়ে যাওয়ায় সাভারের রাজ্জাক প্লাজায় সেটি ঠিক করতে যান তিনি। সেখান থেকে রাত সাড়ে ৯টার দিকে ধামরাইয়ের বারবাড়িয়া বাসস্ট্যান্ডে ওই তরুণীর সঙ্গে ভুক্তভুগী তরুণের দেখা হয়। ওই তরুণীকে বাসায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য তারা একসঙ্গে বাড়ির দিকে যেতে থাকেন। এ সময় তাদের পথরোধ করে বিভিন্ন প্রশ্ন করা সহ অশালীন কথাবার্তা বলতে থাকনে চার যুবক। একপর্যায়ে বারবাড়িয়া গ্রামের মোকলেছুর রহমানের বাড়িতে নিয়ে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করেন। তাদের একসঙ্গে বসিয়ে বিভিন্ন ছবি তোলেন। এবং তা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ সংবাদপত্রে প্রকাশ করার হুমকি দিয়ে দেড় লাখ টাকার চাঁদা দাবি করেন ওই চার যুবক। মঙ্গলবার (২৪ মে) সকালে টাকা আনার কথা বলে ওই তরুণ কৌশলে র‍্যাব-৪-এর মানিকগঞ্জ ক্যাম্পে ফোন দেন। খবর পেয়ে র‍্যাবের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে ওই চার যুবককে আটক করে এবং ওই তরুণ-তরুণীকে উদ্ধার করে।

স্থানীয় গাঙ্গুটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান কাদের মোল্লা বলেন, রাতের বেলা ওই তরুণ-তরুণীকে একসঙ্গে দেখতে পেয়ে এলাকার ছেলেরা তাদের আটক করেন। পরে র‍্যাব এসে তাদের উদ্ধার করেছে বলে শুনেছি।

মানিকগঞ্জ সিপিসি-৩ র‌্যাব-৪-এর কোম্পানি কমান্ডার লে. কমান্ডার আরিফ হোসেন বলেন, একটি ঘরের মধ্যে ওই তরুণ ও তরুণীকে আটকে রেখে ছবি তুলে ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে চাঁদা দাবি করা হয়েছিল। ওই তরুণ-তরুণীকে উদ্ধার সহ চার যুবককে আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের কাছ থেকে পাঁচটি মোবাইল, একটি মোটরসাইকেল ও চাঁদাবাজির নগদ ৩২,০০০ (বত্রিশ হাজার) টাকা জব্দ করা হয়েছে। তাদের থানা-পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে। এই ঘটনায় আটকে রাখা তরুণের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

সাহস২৪.কম/এএম/এসকে.

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা এখন শূন্যের কোঠায় পৌঁছেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। আপনিও কি তাই মনে করেন?