ভাসানচরের উদ্দেশে আরো ১৯০৪ রোহিঙ্গা

প্রকাশ : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ১৪:৩১

সাহস ডেস্ক

ভাসানচরের উদ্দেশে যাত্রা করেছে আরো ১৯০৪ রোহিঙ্গা শরণার্থী। চট্টগ্রাম নৌ বাহিনীর জেটি ঘাট থেকে বৃহস্পতিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টা ৫২ মিনিট থেকে পর্যায়ক্রমে ৮টি জাহাজে এসব রোহিঙ্গা বহরের যাত্রা শুরু হয়।

নৌ গোয়েন্দা বিভাগের চট্টগ্রাম অফিস সূত্র জানায়, নৌবাহিনীর আটটি জাহাজ মোট ১ হাজার ৯০৪ জন রোহিঙ্গাকে নিয়ে ভাসানচরের উদ্দেশে রওয়ানা হয়েছে। আট জাহাজের দুইটিতে রোহিঙ্গাদের নিত্য ব্যবহার্য মালপত্র এবং ছয়টিতে মানুষ পরিবহন করা হচ্ছে। নৌ বাহিনীর চট্টগ্রাম অঞ্চলের প্রধান রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক এনডিসি, পিএসসি সকাল ৯টা ৫২ মিনিটে প্রথম জাহাজকে বিদায় জানানোর মধ্য দিয়ে এ পর্বের প্রত্যাবাসন কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। রোহিঙ্গাবাহী জাহাজগুলো দুপুর নাগাদ ভাসানচর পৌঁছাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

টেকনাফ থেকে শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশন সূত্র জানায়, গতকাল বুধবার দুপুরে পুলিশি পাহারায় প্রথম পর্বে ১৯ বাসে উখিয়া কলেজ মাঠ থেকে সামবার সন্ধ্যায়ও আসেন ট্রানজিট পয়েন্টে। এগারো দফায় দুপুর ও বিকেলে এক হাজার ৯০৪ রোহিঙ্গা কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশে রওয়ানা হন এক হাজার ১৭ রোহিঙ্গা। বিকাল ৫ টার দিকে আরো ১৯ বাসে করে যান ৮৮৭ জন। এর আগে বিভিন্ন ক্যাম্প থেকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রহরায় উখিয়া কলেজ মাঠে আসেন তারা। অনেকে যোগ করেন।

নৌ গোয়েন্দা বিভাগ জানায়, কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রাম পৌঁছার পর তাদের পতেঙ্গা শাহীন কলেজ মাঠে রাত্রি যাপনের ব্যবস্থা করা হয়। সকাল থেকে পর্যায়ক্রমে ও শৃঙ্খলার সাথে তাদের জাহাজে তুলে দেওয়া হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা এখন শূন্যের কোঠায় পৌঁছেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। আপনিও কি তাই মনে করেন?