x

এইমাত্র

  •  পাঁচজন বিশিষ্ট নারীকে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব পদক-২০২২ প্রদান করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
  •  ভারতের পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য রাজস্থানে মন্দিরে পদদলিত হয়ে ৩ জন নিহত হয়েছেন
  •  জ্বালানি তেল ডিজেল, পেট্রল ও অকটেনের মূল্যবৃদ্ধির প্রজ্ঞাপনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট
  •  তাইওয়ানের পাশে সামরিক মহড়া অব্যাহত রাখবে চীন
  •  কওমি মাদ্রাসার শিক্ষা বোর্ডগুলোর সঙ্গে পূর্বনির্ধারিত ১০ আগস্টের বৈঠক স্থগিত করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

আতিকুল ইসলামের ঝটিকা অভিযান

প্রকাশ : ১৯ জানুয়ারি ২০২২, ১৩:৪৮

সাহস ডেস্ক

শীতের আমেজ তখনও কাটেনি। ব্যস্ত হয়ে উঠেনি নগর জীবন। এমনই সময়ে কাউকে কিছু না জানিয়ে হঠাৎ রাজধানীর মহানগর আবাসিক এলাকা এবং পশ্চিম রামপুরা এলাকায় ঝটিকা অভিযান চালিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) নগর পিতা মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

আজ বুধবার (১৯ জানুয়ারি) ভোরে মেয়র এ অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানে ফুটপাতে বিভিন্ন নির্মাণসামগ্রী দেখতে পেয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।

এ সময় বিভিন্ন অব্যবস্থাপনার চিত্র তার নজরে আসে। তিনি দেখতে পান, একটি নির্মাণাধীন বাড়ির সামনে সড়কে ফুটপাত দখল করে নির্মাণসামগ্রী রাখা হয়েছে। এছাড়া ফুটপাত ও ড্রেন বন্ধ হয়ে আছে আবর্জনায়। অব্যবস্থাপনার কারণে তিনি তাৎক্ষণিক বাড়িটির নির্মাণকাজ বন্ধ করার নির্দেশ দেন। পাশাপাশি ফুটপাত দখলের দায়ে জরিমানার নির্দেশও প্রদান করেন।

অন্যদিকে, একটি মিষ্টির দোকানের সামনে ময়লা ফেলে রাখায় তিনি কর্তৃপক্ষকে ডেকে তাৎক্ষণিক পরিষ্কারের নির্দেশ প্রদান করেন। পাশেই সড়কে এবং ফুটপাত দখল করে বালু রাখায় মালিককে ডেকে কারণ জানতে চান এবং বালু জব্দ করার নির্দেশ দেন।

মেয়র একটি ভবনের কেয়ারটেকারকে বলেন, মানুষ রাস্তা দিয়ে হাঁটবে না? এটা কি তোমার রাস্তা? এটা জনগণের রাস্তা। এটা এখানে রাখলে কেন? ভেতরে রাখতে পারলা না? ভেতরে তোমাদের জায়গা নেই? এখন সব মালামাল থানায় যাবে।

মেয়র অপর একটি নির্মাণাধীন ভবনে গিয়েও একই চিত্র দেখতে পান। সেখানেও ফুটপাত দখল করে নির্মাণসামগ্রী রাখা হয়েছে। পরে মেয়র সব মালামাল বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দেন। পাশাপাশি ভবনের ডেভেলপার কোম্পানি ও সাইট ইঞ্জিনিয়ারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন।

তিনি বলেন, এই শহর আমাদের সবার। আমরা যদি নিজ নিজ জায়গা থেকে সবাই সচেতন না হই তাহলে শহরটার পরিবেশ আমরা সুন্দর করতে পারব না। তাই আমাদের সবাইকে সচেতন হতে হবে। সাধারণ মানুষের কথা ভাবতে হবে।

এদিকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন সূত্রে জানা গেছে, শহরের বিভিন্ন স্থানে অব্যবস্থাপনা দূর করতে মূলত মেয়র এমন আকস্মিক পরিদর্শনে যাচ্ছেন। যাতে সংশ্লিষ্ট সবাই সচেতন থাকেন এবং অব্যবস্থাপনা দূর করতে সিটি করপোরেশনসহ সবাই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণ করেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা এখন শূন্যের কোঠায় পৌঁছেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। আপনিও কি তাই মনে করেন?