x

এইমাত্র

  •  এসএসসি-সমমানে পাসের হার ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ
  •  করোনায় সারা বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ৩ লাখ ৭১ হাজার ২৩ জন
  •  করোনায় বিশ্বজুড়ে আক্রান্ত ৬১ লাখের অধিক, সুস্থ হয়েছেন ২৭ লাখেরও বেশী
  •  করোনা পরিস্থিতি অনুকূলে না আসা পর্যন্ত এইচএসসি পরীক্ষা নয়
  •  করোনাভাইরাসঃ বাংলাদেশে রেকর্ড ৪০ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৫৪৫

কুষ্টিয়া কুমারখালীতে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আপন দুই ভাই নিহত

প্রকাশ : ০১ এপ্রিল ২০২০, ০০:২৮

কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী উপজেলার পাহাড়পুর গ্রামে সন্ধ্যায় ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে আপন দুই ভাই নিহত হয়েছে। তারা হলেন পাহাড়পুর গ্রামের চাঁদ আলীর ছেলে মেহের আলী (৬০) ও বকুল (৫০)।

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ তাপস কুমার সরকার এই হত্যাকান্ডের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

বাঁধ বাজার এলাকার ফিরোজ ওরফে কটা মেম্বার জানান, পাহাড়পুর গ্রামে ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে ইউসুফের ছেলে রাজুর সাথে প্রতিপক্ষ গ্রুপের সাথে মারামারি হয়। এরই প্রেক্ষিতে আজ সকালে বাঁধবাজার পুলিশ ক্যাম্পে এসআই গৌতম দুই গ্রুপের লোকজনকে ডেকে এই ঘটনার সালিশী বৈঠক করেন। সালিশী বৈঠকে ভুট্টো-মিলি-মুন্তা গ্রুপের লোকজনকে চড় থাপ্পড় মারা হয়। এই অপমান সহ্য করতে না পেরে তারা সন্ধ্যায় এই ঘটনা ঘটিয়েছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, পাহাড়পুর সাদ ব্যাপারী গ্রুপের সাদের আপন দুই ভাই মেহেদ আলী (৬০) ও বকুল (৫০) কমলাপুর বাজার থেকে বাজার করে বাড়ি ফেরার পথে পাহাড়পুর মন্টুর বাড়ি থেকে ভুট্টো-মিলি-মুন্তা গ্রুপের প্রায় অর্ধ শতাধিক লোক দেশীয় অস্ত্র হাসুয়া, বেকি, তরোয়ার, রড, লোহার পাইপ দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপাতে থাকে। এই হত্যাকান্ডে নেতৃত্ব পাহাড়পুর গ্রামের ভুট্টো, তুহিন, মুন্তা, গেদু, খোরশেদ, মিলন, টুটুল, খোকন, তরুণ, শাজাহান ও নুরপুর গ্রামের মিলনসহ প্রায় অর্ধ শতাধিক লোকজন।

পরে রক্তাত্ত অবস্থায় মেহেদ আলী ও বকুলকে এলাকাবাসী উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের দুইজনকে মৃত ঘোষণা করেন। এর আগে ভুট্টো-মিলি মুন্তুা গ্রুপ বাঁধ বাজারে ফিরোজ ওরফে কটা মেম্বারের অফিসে হামলা চালাতে গেলে স্থানীয় জনতা ও পুলিশের বাঁধায় ব্যর্থ হয়ে ফেরার পথে এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটায়।

এ ব্যাপারে কুমারখালী থানার অফিসার-ইনচার্জ জাহাঙ্গীর আলম এর মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। বর্তমানে এলাকায় চরম উত্তেজনা চলছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত